কারিতাস, বাংলাদেশ কাথলিক বিশপ সন্মীলনী কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত কারিতাস বাংলাদেশ হচ্ছে একটি জাতীয় প্রতিষ্ঠান এবং এটি জনগণের জন্য সমন্বিত সমাজ কল্যাণ ও উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করে। এ সংস্থার নীতিমালা প্রণয়নের জন্য রয়েছে একটি সাধারণ পরিষদ (General Body) এবং একটি নির্বাহী পরিষদের (Executive Board) তত্ত্বাবধানে নির্বাহী পরিচালকের নেতৃত্বে কারিতাস ম্যানেজমেন্ট কর্মকান্ড পরিচালনা করে।

কারিতাস পাকিস্তানের পূর্ব শাখা হিসেবে ১৯৬৭ সালে কারিতাস প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯৭০ সালের নভেম্বর মাসে প্রলয়ংকারী ঘূণিঝড় আঘাত হানার পর এ সংস্থা পুনর্গঠিত হয়ে খ্রিষ্টিয়ান অরগানাইজেশন ফর রিলিফ এ্যান্ড রিহ্যাবিলিটেশন অর্থাৎ কোর (CORR) নামে পরিচিতি লাভ করে এবং ১৯৭১ সনের ১৩ই জানুয়ারী একটি জাতীয় প্রতিষ্ঠানের মর্যাদা প্রাপ্ত হয়। কারিতাস নাম ১৯৭৬ সালে পুনঃপ্রবর্তিত হয়।

কারিতাস বাংলাদেশ ১৯৭২-৭৩ সনের সমবায় নিবন্ধন আইন ১৮৬০ সনের ২১ ধারা অনুসারে ৩৭৬০-বি/১১ নম্বর ১৩ জুলাই ১৯৭২ তারিখে নিবন্ধিত। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এনজিও বিষয়ক ব্যুরো এর বৈদেশিক সাহায্যের (স্বেচ্ছাসেবী কর্মকান্ড) আওতাভূক্ত রেগুলেশন অডিন্যান্স অনুযায়ী ০০৯ নিবন্ধন নং ১২ এপ্রিল ১৯৮১ তারিখে এবং ১৯৭৮ সনের ক্ষুদ্র ঋণ রেগুলেটরি ২০০৬ ধারায় ০০৩২-০০২৮৬-০০১৮৪ নিবন্ধন নং ১৬ মার্চ ২০০৮ তারিখে এই সংস্থাটি নিবন্ধিত।                                                                                                       

কারিতাসের প্রধান কার্যালয় হচ্ছে ঢাকা মহানগরে। এছাড়া আটটি আঞ্চলিক (অথবা ধর্মপ্রদেশীয়) কার্যালয় যথা- বরিশাল, চট্টগ্রাম, ঢাকা, দিনাজপুর, খুলনা, ময়মনসিংহ, রাজশাহী এবং সিলেটে অবস্থিত। এসব স্থানে সমন্বিত উন্নয়ন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা এবং মানব সম্পদ উন্নয়ন বিষয়ক কর্মকান্ডে কারিতাস নিয়োজিত।

আমাদের দিগদর্শন, অনুপ্রেরণা ও লক্ষ্য

দিগদর্শনঃ কাথলিক মন্ডলীর সামাজিক শিক্ষার আলোকে কারিতাস বাংলাদেশ এমন একটি সমাজের স্বপ্ন দেখে যা স্বাধীনতা, ন্যায্যতা, শান্তি ও ক্ষমাশীলতার মূ্ল্যবোধকে সমুন্নত রাখে এবং এতে সকলেই পারস্পরিক ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা সহকারে ভাব আদান প্রদানের মাধ্যমে কমিউনিটি হিসেবে বসবাস করতে পারে।

অনুপ্রেরণাঃ পবিত্র বাইবেলের বাণী দ্বারা আমরা অনুপ্রাণিত: যীশু বলেন, “কারণ আমি ক্ষুধার্ত ছিলাম, আর তোমরা আমাকে খেতে দিয়েছিলে; তৃষ্ণার্ত ছিলাম আর আমাকে জল দিয়েছিলে; প্রবাসী ছিলাম আর আমাকে আশ্রয় দিয়েছিলে; বস্ত্রহীন ছিলাম আর আমাকে পোশাক পরিয়েছিলে; পীড়িত ছিলাম আর আমার সেবাযত্ন করেছিলে; কারারুদ্ধ ছিলাম আর আমাকে দেখতে এসেছিলে – এই ক্ষুদ্রতম ভাইদের একজনেরও প্রতি যা কিছু করেছ, তা আমারই প্রতি করেছে” (মথি ২৫:৩৫-৩৫, ৪০)।

লক্ষ্যঃ কারিতাস বাংলাদেশ জনগণের বিশেষভাবে দরিদ্র ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠির অংশীদার এবং সকলের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে সমন্বিত উন্নয়ন অর্জনের প্রচেষ্টা গ্রহণ করে যেন সকলেই সত্যিকার অর্থে মর্যাদা নিয়ে বসবাস করতে পারে ও অন্যদেরকে দায়িত্ব সহকারে সেবা প্রদানে সমর্থ হয়।

কারিতাস ৬টি সুনির্দিষ্ট লক্ষ্যের মাধ্যমে সেবা প্রদান করে থাকে, যা নিম্নে প্রদান করা হল।

লক্ষ্য-১: সমাজ কল্যাণ ও কমিউনিটি উন্নয়ন

অতি দরিদ্র ও বিপন্ন জনগণের জীবনমান উন্নয়ন

উদ্দেশ্যসমূহ:

  • অতি দরিদ্র ও বিপন্ন জনগণের কর্মস্থান সৃষ্টি এবং আয় বৃদ্ধি, খাদ্য নিরাপত্তা ও বাসস্থান ব্যবস্থার উন্নয়ন।
  • অতি দরিদ্র ও বিপন্ন জনগণের আর্থসামাজিক অবস্থার উন্নতি এবং মর্যাদা বৃদ্ধি করা।

লক্ষ্য-২: মানসম্মত শিক্ষা

শিক্ষা অধিকার এবং একীভূত মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিতকরণ

উদ্দেশ্যসমূহ:

  • সুযোগবঞ্চিত সমাজের শিশুদের অনুকুল শিখন পরিবেশে শিক্ষা লাভের সহজ সুযোগ সৃষ্টি করা।
  • মানসম্মত শিক্ষা ব্যবস্থাপনা জোরদার করা।
  • বৃত্তিমূলক ও কারিগরি শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়ন।
  • নৈতিক ও মূল্যবোধ বিষয়ক শিক্ষার উন্নয়ন।

লক্ষ্য-৩: স্বাস্থ্যসেবা ও শিক্ষা

স্বাস্থ্যশিক্ষা, যত্ন এবং জনস্বাস্থ্য সেবাসমূহ প্রদান

উদ্দেশ্যসমূহ:

  • প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা জোরদার করা।
  • জীবনমূখী প্রজনন স্বাস্থ্যশিক্ষা এবং প্রাকৃতিক পরিবার পরিকল্পনা কার্যক্রম জোরদার করা।
  • পানি, স্বাস্থ্য ব্যবস্থা এবং স্বাস্থ্যবিধি বিষয়ে মানসম্মত এবং ন্যায্য প্রবেশাধিকার।
  • যৌনতার মাধ্যমে সংক্রমণ, এইচআইভি ও এইডস, যক্ষা, কুষ্ঠ ও অন্যান্য সংক্রামক ব্যাধি প্রতিরোধের জন্য জনগণের সক্ষমতা বৃদ্ধিকরণ।
  • মাদকাসক্তি নিরাময় ও যৌন নির্যাতন প্রতিরোধ, চিকিৎসা এবং চিকিৎসা পরবর্তী সেবা জোরদার করা।

 লক্ষ্য-৪: দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা

দুর্যোগে জরুরী সাড়াদান কার্যকম শক্তিশালীকরণ এবং দুর্যোগ সহনশীল সমাজ গঠন করা

উদ্দেশ্যসমূহ:

  • দুর্যোগে জরুরী সাড়াদান কার্যক্রম শক্তিশালী করা।
  • দুর্যোগ সহনশীল সমাজ গঠনে জনগণের সক্ষমতা বৃদ্ধি করা।
  • জরুরী সাড়াদান ও উন্নয়ন কাজের পরিকল্পনা, নীতিমালা ও কৌশলের মধ্যে দুর্যোগের ঝুঁকি হ্রাসকে অন্তর্ভূক্ত করা।

লক্ষ্য-৫: প্রতিবেশগত সংরক্ষণ এবং উন্নয়ন

প্রতিবেশগত স্থায়িত্বশীলতা জোরদারকরণ

উদ্দেশ্যসমূহ:

  • প্রাকৃতিক সম্পদ ব্যবস্থাপনা এবং জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ জোরদার করা।
  • জলবায়ু পরিবর্তনজনিত অভিযোজন সক্ষমতা বৃদ্ধি করা।
  • খাদ্য নিরাপত্তা ও স্থায়িত্বশীল জীবিকার উন্নয়ন।

লক্ষ্য-৬: আদিবাসী জাতিসমূহের উন্নয়ন

আদিবাসী জনগোষ্ঠির জীবন যাত্রার মান উন্নয়ন

উদ্দেশ্যসমূহ:

  • আদিবাসী জনগোষ্ঠির জীবন যাত্রার মান ও মর্যাদা উন্নয়ন।
  • আদিবাসী জনগোষ্ঠির ঐতিহ্যবাহী সামাজিক সংগঠন এবং জন-নেতৃত্বে পরিচালিত আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহ শক্তিশালীকরণ।

ভূমি সংরক্ষণ ও উন্নয়নে আদিবাসী জনগোষ্ঠির সক্ষমতা ও উন্নয়ন জোরদার/বৃদ্ধি করা।

কারিতাস ময়মনসিংহ অঞ্চলাধীন চলমান প্রকল্পসমূহঃ

১.    আইএমডিসি- অভিবাসী এবং সুবিধাবঞ্চিত জনগণের জন্য তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) সেবা প্রকল্প।

২.    কারিতাস মাইক্রো ফাইন্যান্স প্রোগ্রাম (সিএমএফপি)

৩.    ময়মনসিংহ শহরের বিপদাপন্ন পথ শিশুদের স্বপ্নের রূপায়ন (ড্রীম) প্রকল্প

৪.    ত্যাগ ও সেবা অভিযান (TOSA)

৫.    মর্যাদাপূর্ণ ও স্থায়িত্বশীল আর্থ-সামাজিক ক্ষমতায়ন কর্মসূচি (SEEDS-SF)

৬.    কারিতাস বাংলাদেশ ও ময়মনসিংহ কাথলিক ধর্মপ্রদেশীয় যৌথ ব্যবস্থাপনায় পরিচালিত শিক্ষা কার্যক্রম

৭.    ফরমেশন অব ইয়ুথ এন্ড টিচার্স প্রকল্প (এফওয়াইটিপি)

৮.    আঞ্চলিক কারিগরি বিদ্যালয় (আরটিএস)

৯.    মোবাইল টেকনিক্যাল ট্রেনিং প্রজেক্ট (এমটিটিপি)

১০.  কমিউনিটি বেইজড-মোবাইল টেকনিক্যাল টেনিং প্রজেক্ট (সিবি-এমটিটিপি)

১১.   প্রবীণ প্রতিবন্ধী ও মাদকাসক্ত ব্যক্তিদের সমাজকল্যাণ, শিক্ষা ও স্বাস্থ্যসেবায় প্রবেশগম্যতা বৃদ্ধিকরণ (এসডিডিবি) প্রকল্প

১২.  প্রজনন ও শিশু স্বাস্থ্য উন্নয়ন (আরসিএইচডিপি) প্রকল্প

১৩.  সামর্থ্য

১৪.   সবুজ জীবিকায়ন

১৫.  স্থায়িত্বশীল খাদ্য ও জীবিকায়ন নিরাপত্তা প্রকল্প (সুফল)

১৬. সম্প্রসারিত কৃষক পরিচালিত কৃষি সম্প্রসারণ প্রকল্প (এফএলএ)

১৭.   আলোক-২

১৮.  প্রদীপ-এমজেএফ

১৯.  বিদেশ থেকে ফিরে আসা (নারী/পুরুষ) বাংলাদেশী অভিবাসী শ্রমিকদের পুনর্বাসন সহায়তা প্রকল্প

১. মিজানুর রহমান বকুল, সিনিয়র একাউন্টস এন্ড এডমিন অফিসার

২. শশাঙ্ক রিছিল, প্রকল্প সমন্বয়কারী-প্রদীপ-এমজেএফ

৩. দুলেন আরেং, প্রোগ্রাম ম্যানেজার-সিডস্-এসএফ

৪. অসীম আগষ্টিন মানকিন, প্রোগ্রাম অফিসার-ডিএম

৫. রোজীনা রংমা, প্রোগ্রাম অফিসার-জেন্ডার

৬. বুলবুল মানখিন, প্রোগ্রাম অফিসার-আইসিডিপি

৭. শান্তনু রায়, প্রোগ্রাম অফিসার-এগ্রি.

৮. সেকেন্দ্র স্নাল, প্রোগ্রাম অফিসার-এফওয়াইটিপি

 

SAMSUNG CAMERA PICTURES

১. ফ্রান্সিস অতুল সরকার, নির্বাহী পরিচালক, কারিতাস বাংলাদেশ

২. সেবাষ্টিয়ান রোজারিও, পরিচালক (অর্থ ও প্রশাসন), কারিতাস বাংলাদেশ

৩. রঞ্জন ফ্রান্সিস রোজারিও, পরিচালক (প্রোগ্রামস্), কারিতাস বাংলাদেশ

৪. অপূর্ব ম্রং, আঞ্চলিক পরিচালক ও আপীল কর্মকর্তা, কারিতাস বাংলাদেশ ময়মনসিংহ অঞ্চল

অপূর্ব ম্রং, আঞ্চলিক পরিচালক, কারিতাস বাংলাদেশ ময়মনসিংহ অঞ্চল (আপীল কর্মকর্তা); মোবা: ০১৭১৩৩৮৪০৭১

মিস রোজীনা রংমা, প্রোগ্রাম অফিসার (জেন্ডার), মোবাইল: ০১৭১৩২৫৭২৬১